Take A look

নাটোর ৪টি মোটর সাইকেলসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৩ সদস্য আটক

মো. আব্দুস সালাম, নাটোর থেকে
নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫ এর অভিযানে ৪টি চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ আন্তঃজেলা মোটর সাইকেল চোর চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করা হয়েছে।
নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর একটি অপারেশন দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে কোম্পানী অধিনায়ক, অতিঃ পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ  হোসেন এবং কোম্পানী উপ-অধিনায়ক, মোঃ রফিকুল ইসলাম এর নেতৃতে গত ২১ ডিসেম্বর রাত ১০ ঘটিকা থেকে পরদিন সকাল ৮ ঘটিকা পর্যন্ত নাটোর জেলার সদর থানা এবং গুরুদাসপুর থানা ও পাবনা জেলার চাটমোহর থানা এলাকা অভিযান চালিয়ে চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার ও চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার কার্যক্রম পরিচালনা করেন।
নাটোর জেলার সদর থানায় একটি ট্রান্সপোর্ট পার্সেল এজেন্সিতে একটি চোরাই মোটরসাইকেল বুকিং দেয়া হচ্ছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে চোরাই মালামাল উদ্ধার করতে গেলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে উক্ত চোর চক্রের ২/৩ জন সদস্য কৌশলে পালিয়ে গেলেও নাটোর জেলার গুরুদাসপুর থানার চাচকৈড় গ্রামের মোঃ কাজেম প্রামানিকের ছেলে মোঃ নুর ইসলাম (২৮)কে ১ টি চোরাই ডিসকভার ১২৫ সিসি মোটর সাইকেলসহ আটক করা হয়। পরবর্তীতে মোঃ নুর ইসলাম এর নিকট গাড়ির কাগজপত্র দেখাতে চালে কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হয় এবং সাক্ষীদের সন্মুখে সেটি চোরাই মোটর সাইকেল বলে স্বীকার করন। চোরাই মোটর সাইকেলটি জব্দ করা হয়।
পরবর্তীতে আটককৃত নুর ইসলাম এর তথ্যের ভিত্তিতে তাৎক্ষনিক অভিযান পরিচালনা করে পাবনা জেলার চাটমোহর থানার পাঠানপাড়া জিরোপয়েন্ট গ্রামের মোঃ আঃ রাজ্জাকের ছেলে মোঃ রাকিব হাসান (৩০)কে একটি কালো রঙের পালসার ১৫০ সিসি চোরাই মোটর সাইকেলসহ আটক করা হয়।
অতপর আটককৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে নাটোর জেলার গুরুদাসপুর থানার বিল বিয়াসপুর গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মোঃ তুহিন পাগলা (৩০)কে একটি ড্রাগন ১২৫ সিসি ও একটি সাদা রঙের ১৫০ সিসি চোরাই মোটরসাইকেল জব্দসহ আটক করা হয়।  
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা আন্তঃজেলা চোর চক্রের সদস্য। তারা দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন জেলা হতে মোটর সাইকেল চুরি করে অনলাইন প্লাটফর্মে মোটর সাইকেল বিক্রয়ের চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে গ্রাহক সংগ্রহ করে তাদের কাছে চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রয় করে আসছে।
উপরোক্ত ঘটনায় আটককৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। #RabBd